রবিবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৪

আমাদের নিউজ রেডিও টুডেতে প্রচার

আমাদের নিউজ গত পরশু দিন (২৭.০৮.২০১৩) বিকাল ৪:৪৫ এর নিউজে দিয়েছিল রেডিও টুডে। সরাসরি যারা শুনতে পাননি তারা শুনে নিন, এখানে থেকে ডাউনলোড করেঃ http://goo.gl/O7ki4s
Logo of Radio Today

বাড়িতে বসেই ইন্টারনেটে আউট সোর্সিং এর কাজ করে  প্রতি মাসে ৬০ থেকে ৭০হাজার টাকা আয় করছে মেহেরপুরের যুবক জাহাঙ্গীর জিন্নাত হিরক। কর্মসংস্থান হয়েছে এলাকার আরও ২৩ জন যুবকের। জেলা শহর থেকে প্রায় ৬/৭ কিলোমিটার দিরে সদর উপজেলার আমঝুপি ইউনিয়নের চাঁদবিল গ্রামের মুন্সি জাহাঙ্গীর জিন্নাত হিরক।মেহেরপুর সরকারী বালক বিদ্যালয় থেকে এস এসসি পরিক্ষায় মানবিক বিভাগ থেকে পাশ করে।বাণিজ্যিক শাখায় মেহেরপুর সরকারী কলেজ থেকে এইচ এসসি পাশ করেন। ঢাকার নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ থেকে মার্কেটিং বিভাগ থেকে বি,বি,এ ও এম,বিএ শেষ করে বন্ধুদের কাছ থেকে আউট সোর্সিং এর কাজ শিখে দুই বছর আগে গ্রামে চলে আসে। 

প্রথমের দিকে বাড়িতে বসেই ইন্টারনেটে শুরু করেন আউট সোর্সিং এর কাজ। বর্তমানে প্রতি মাসেই তার এখন আয় হচ্ছে ৬০ থেকে ৭০ হাজার টাকা। আউট সোসিং এর অধিকংশ কাজ করতে হয় আমেরিকা , ভারত, ইংল্যান্ড ও অস্ট্রোলিয়ার সাথে। এখন নিজে কাজ করার পাশাপাশি গ্রামের বেকার যুবকদের সংগঠিত করে নিজ বাড়িতেই খুলে বসেন ইউনিক সফ্ট আউট সোর্সিং নামের একটি প্রশিক্ষন কেন্দ্র। পরবর্তীতে নিজ এলাকা চাঁদবিলে একটি বাড়ি ভাড়া নিয়ে শুরু করেছেন তার কার্যক্রম। তবে এখানে প্রশিক্ষনার্থীদের কাছ থেকে কোন টাকা নেওয়া হয় না। বর্তমানে এ প্রশিক্ষন কেন্দ্র থেকে ২৩ জন যুবকের কর্মসংস্থান হয়েছে। প্রশিক্ষন দিয়ে আগামীতে ৩ হাজার  যুবকের কর্মসংস্থান বাড়নোর আশা প্রকাশ করছেন প্রতিষ্ঠানটির স্বত্বাধীকারী হিরক। 

ইউনিক সফট আউট সোসিং এ প্রশিক্ষণ নিয়ে এখন প্রতি মাসে ২০ হাজার টাকা আয় করছে চাঁদবিল গ্রামের আশরাফুল আলম। তিনি আরও জানান বাবার ব্যবসা দেখার পাশাপাশি আউট সোসিং এর কাজ করি। ইন্টারনেটে কাজ করে লেখাপাড়ার খরচ চালিয়েও পরিবারে স্বচ্চলতা ফিরিয়ে এনেছে সোহেল রানা সহ আরও অনেকে। হিরক নিজ উদ্যোগে এলাকার বেকার যুবকদের নিয়ে এসে কর্মসংস্থান করায় বেশ খুশি এলাকাবাসী ও তার পরিবার।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Designed By Blogger Templates | Published by Responsive blogger Templates